January 26, 2020, 10:30 am

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম :
ভাটেরচর দে এ মান্নান পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে এস.এস.সি পরীক্ষার্থীদের বার্ষিক মিলাদ দোয়া মাহফিল ও বিদায় অনুষ্ঠিত মেঘনা শিল্পনগরী স্কুল এন্ড কলেজে এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়ামাহফিল অনুষ্ঠিত সোনারগাঁওয়ে ডাকাতের ছুরিকাঘাতে নিহত-১ আহত-২ সোনারগাঁওয়ে চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত গজারিয়ায় সাংবাদিকদের সাথে ওসির মত বিনিময়. চৌধুরীগাঁও উচ্চ বিদ্যালয়ে চুরি, নগদ টাকা ও কাগজপত্র লুট সোনারগাঁওয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনের দায়ে ১৩ শ্রমিক আটক, প্রত্যেককে ৭ দিনের কারাদন্ড ‘বেদের মেয়ে জোসনা’র প্রযোজক আব্বাস আর নেই সংগীত শিল্পীএন্ড্র কিশোরের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন প্রধানমন্ত্রী মেঘনা নদীর আনন্দ বাজার এলাকায় চলছে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন প্রশাসন নিরব

সায়মা ধর্ষণ-হত্যার মূল অভিযুক্ত হারুন গ্রেফতার

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর ওয়ারীর বনগ্রাামে শিশু সামিয়া আক্তার সায়মাকে (৭) ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হারুনকে গ্রেফতার করেছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা (ডিবি) শাখার সদস্যরা। রোববার (৭ জুলাই) দুপুরে ডিএমপির ওয়ারী বিভাগের ভারপ্রাপ্ত উপ-কমিশনার (ডিসি) ইফতেখার আহমেদ কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শিশু সায়মাকে ধর্ষণের পর হত্যার ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হারুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। দুপুর দেড়টায় ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানানো হবে। এর আগে, মামলার তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা মূলহোতা হারুনকে শনাক্ত করার কথা জানান।

তিনি জানান, ওই ভবন ও আশপাশের ভবনের সিসি ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজ সংগ্রহ করে যাচাই-বাছাই করা হয়েছে। পরে সন্দেহভাজন কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদও করা হয়েছে এবং ঘটনায় মূল অভিযুক্ত হারুনকে শনাক্ত করা হয়েছে। ওই ভবনের একটি ফ্লোরে হারুনের ভাই বসবাস করেন। এজন্য হারুন প্রায়ই ওই বাসায় আসা-যাওয়া করতেন।

গত শুক্রবার (৫ জুলাই) রাত ৯টার দিকে রাজধানীর ওয়ারীতে সেই ভবনের নয় তলার খালি ফ্ল্যাট থেকে শিশু সামিয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ভবনের ছয়তলায় শিশু সায়মা তার পরিবারের সঙ্গে থাকতো। শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে খেলা করতে বাসা থেকে বের হয় সায়মা। এরপর থেকে শিশুটি নিখোঁজ ছিল।

শনিবার (৬ জুলাই) দুপুরে সায়মার মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন করার পর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সোহেল মাহমুদ জানান, শিশুটিকে ধর্ষণের পর তার গলায় রশি পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

এক প্রশ্নের জবাবে সোহেল মাহমুদ বলেন, শিশুটির মুখে কামড়ের দাগ পাওয়া গেছে। এছাড়া তার ‘হাই ভ্যাজাইনাল সয়াব’ পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। পরীক্ষার প্রতিবেদন পাওয়ার পর পূর্ণাঙ্গ তথ্য জানানো হবে।

এই পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

© All rights reserved © 2017 সোনারগাঁও খবর
Design BY Codeforhost.com
themesbsongar1727434411