February 11, 2020, 4:31 pm

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে বন্ধ হচ্ছেনা অবৈধ বালু উত্তোলন প্রশাসনের নিরব সোনারগাঁওয়ে ওবায়দুল কাদের ‘ড. কামাল সীমা ছাড়িয়ে গেছেন ’ সোনারগাঁওয়ে তাহুরা-ইমতিয়াজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কম্বল বিতরন গণমাধ্যমে সংবাদ বাদ প্রকাশের পরও বন্ধ হচ্ছেনা চৈতি কম্পোজিটের বিষাক্ত বর্জ্যে, পরিবেশ বিপর্যয়ে, প্রশাসন নিরব সোনারগাঁওয়ে ইয়াবা ও মদসহ আটক-৩ গজারিয়ায় দেশীয় পাইপগ্যানসহ আটক দুই সোনারগাঁওয়ে যুবককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, মামলা, আটক-১ সোনারগাঁওয়ে চৈতি কম্পোজিটের বিষাক্ত বর্জ্যে পরিবেশ বিপর্যয়ে, প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা সোনারগাঁওয়ে সড়ক দূর্ঘটনায় কভার্ড ভ্যানের হেলপার নিহত, আহত ৩ সোনারগাঁওয়ে মোগরাপাড়া চৌরাস্তা এলাকায় ফুটপাত দখল করে দোকান, পথচারিদের চরম ভোগান্তি

শীর্ষ সন্ত্রাসী জিসান গ্রেফতার

সোনারগাঁও খবর ডেস্ক : বাংলাদেশের ‘শীর্ষ সন্ত্রাসী’ জিসান আহমেদকে গ্রেপ্তার করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পুলিশ। 
দুবাইতে গ্রেপ্তারের পর এখন তাকে দুবাই থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পুলিশের ‍ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা। তার বিরুদ্ধে হত্যা, বিস্ফোরক সরঞ্জাম রাখার অভিযোগ রয়েছে বলে ইন্টারপোলের ওয়েবসাইটে জানানো হয়েছে।
পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো) মহিউল ইসলাম জিসানকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, জিসান সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্য আমাদের কাছে কিছু তথ্য চেয়েছিল। ডিবি পুলিশের সহায়তায় আমরা সেগুলো পাঠানোর পর তারা জিসান আহমেদের পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে জানিয়েছে। ইন্টারপোলের নোটিশটি আরো জোরালো করার জন্য আমাদের অনুরোধ করে।
পুলিশের এই কর্মকর্তা আরো জানান, দুবাই এনসিবির দীর্ঘ পর্যবেক্ষণ ও আমাদের দেয়া তথ্যে জিসানকে গ্রেপ্তার করা গেছে।
জিসানের নাম ইন্টারপোলের রেড অ্যালার্টের তালিকায় ছিল। বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ঘোষিত ‘শীর্ষ ২৩ সন্ত্রাসী’র তালিকায় নাম ছিল জিসান আহমেদের। তাকে ধরিয়ে দেয়ার জন্য পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছিল। তাকে গ্রেপ্তারের জন্য বছরখানেক আগে ইন্টারপোলের সহযোগিতা চেয়েছিল বাংলাদেশ পুলিশ।
উল্লেখ্য, এর আগে ২০০৩ সালে মালিবাগের একটি হোটেল দুইজন ডিবি পুলিশ সদস্যকে হত্যার ঘটনায় জিসান আহমেদের নাম আসে। এরপরে সে দেশ ত্যাগ করে ভারতে পালিয়ে যায়। ভারতে গিয়ে নিজের নাম পরিবর্তন করে আলী আকবর চৌধুরী নামে পাসপোর্ট সংগ্রহ করেন জিসান। এরপর সেই পাসপোর্ট নিয়ে তিনি দুবাইতে অবস্থান করছিলেন।
সম্প্রতি ক্যাসিনোকাণ্ডে বেশ কয়েকজন যুবলীগ নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর জিজ্ঞাসাবাদে তারা জিসানের নামে অপরাধ জগতের অনেক অজানা তথ্য দিয়েছেন। গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ‘টেন্ডারবাজ’ যুবলীগ নেতা জিকে শামীম তারই লোক। তার মাধ্যমেই দুবাইয়ে বসে ঠিকাদারি নিয়ন্ত্রণ করতেন জিসান।

এই পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

© All rights reserved © 2017 সোনারগাঁও খবর
Design BY Codeforhost.com
themesbsongar1727434411