May 28, 2020, 10:56 am

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে নতুন ১৭ জন করোনায় আক্রান্তসহ-১৯০ সোনারগাঁয়ের ক্যান্সার রোগীকে রক্ত দিয়ে পাশে দাঁড়ালেন নির্বাহী কর্মকর্তা সাইদুল ইসলাম। কালাপাহাড়িয়ায় যুবককে গুলি করে হত্যা গজারিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায়, নিহত ৩ সোনারগাঁওয়ে অ্যাম্বুলেন্সের ধাক্কায় রিকশা চালক নিহত মধু দিলেন স্বজন দেন সরকারি প্রনোদনা ও ১০ টাকার চাল সোনারগাঁওয়ে আরো ১৮ জনের করোনা সনাক্ত, মোট- ১৫৯ জন খাসনগর দিঘীর পাড় মসজিদে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ঈদের নামায আদায় রমজানের শেষ দিনও অসহায় পরিবারের মাঝে শামীম আহম্মেদ জয় নগদ অর্থ ও ঈদ সামগ্রী উপহার দিলেন গজারিয়া বাসীকে ঈদুল ফিতরে শুভেচ্ছা জানিয়েছন উপজেলা পরিষদের (সাবেক) মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রভাষক ফরিদা ইয়াসমিন

এসপি হারুন প্রত্যাহার

সোনারগাঁও খবর ডটকম: নারায়ণগঞ্জের আলোচিত পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদকে বদলী করা হয়েছে। তাকে নারায়ণগঞ্জ থেকে ঢাকার হেড কোয়ার্টারে পুলিশ সুপার টিআর হিসেবে এই বদলী করা হয়েছে।

দেশের শীর্ষ স্থানীয় শিল্প গ্রুপ পারটেক্সের কর্ণধার আবুল হাসেমের পুত্রবধূ ও নাতিকে ঢাকার বাড়ি থেকে গভীর রাতে তুলে নিয়ে আসার ঘটনায় তাকে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ জেলার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে নিতে আদেশ জারি করেছেন বলেই খবর পাওয়া গেছে।

রোববার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যার দিকে তাকে এই বদলীর আদেশ দেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় থেকে। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে স্বরাষ্ট্র উপ-সচিব ধনজয় কুমার দাস স্বাক্ষরিত এক আদেশে এই বদলীর বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে।

এর আগে ১ নভেম্বর দিবাগত রাত ১ টার দিকে পারটেক্স গ্রুপের কর্ণধার আবুল হাসেমের ছেলে আম্বর গ্রুপের চেয়ারম্যান শওকত আজিজ রাসেলের গুলশানের বাসভবন থেকে তার স্ত্রী ফারহা রাসেল এবং পুত্র আহনাফ রাসেলকে তুলে নিয়ে আসা হয়েছে বলে এসপি হারুনের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছিলেন আম্বর চেয়ারম্যান রাসেল।

তার দাবি ছিলো, আম্বর ডেনিম থেকে ৮ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করেছিলেন হারুন অর রশীদ। এই চাঁদার টাকা না পেয়ে বুধবার তার ব্যক্তিগত গাড়ি জব্দ করে নিয়ে আসে। পরে ১ নভেম্বর গভীর রাতে তার গুলশানের বাড়িতে ৫০-৬০ জন ডিবি পুলিশ, থানা পুলিশ ও সাদা পোশাকের পুলিশ সদস্যদের নিয়ে হানা দেন এসপি হারুন।

রাসেল আরও দাবি করেছেন, তার বাড়িতে গিয়ে প্রতিটি রুম তছনছ করা হয়। এক পর্যায়ে তার স্ত্রী ফারাহ রাসেল এবং আনাফ রাসেলকে ঘুম থেকে ডেকে তুলে নিয়ে আসা হয় নারায়ণগঞ্জ। এবং তার গাড়ি চালক সুমনকে মাদক ও গুলি দিয়ে আটক করা হয়েছে বলে নাটক মঞ্চস্থ করেন। এ ঘটনায় দুইটি মামলা দায়ের করা হয়। ওই মামলায় আম্বার চেয়ারম্যান শওকত আজিজ রাসেলকেও আসামী করা হয়েছে।

এদিকে রাসেলের বাড়িতে মধ্যরাতে অভিযান চালানো এবং সেখান থেকে তার স্ত্রী-পুত্রকে আটক করে নিয়ে আসার একটি সিসি টিভির ফুটেজ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। এরপর থেকে এ নিয়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়।

এর আগে ২ নভেম্বর পারটেক্স গ্রুপের কর্ণধার আবুল হাসেম ও তার স্ত্রীকে এসপি অফিসে বসিয়ে রাখা হয়েছিলো। পরে বিকেলের দিকে শওকত আজিজ রাসেলের ছেলে ও স্ত্রীকে তাদের হেফাজতে ছেড়ে দিয়ে গাড়ি চালক সুমনকে গ্রেফতার দেখানো হয়। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় শওকত আজিজ রাসেল ও চালক সুমনকে আসামী করে মাদক ও অস্ত্র আইনে পৃথক দুটি মামলা করা হয়েছে।

রোববার (৩ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে প্রত্যাহার করে ঢাকা পুলিশ সদর দপ্তরে নেওয়া হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ঢাকা পুলিশ সদর দপ্তরের এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

এই পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

© All rights reserved © 2017 সোনারগাঁও খবর
Design BY Codeforhost.com
themesbsongar1727434411