October 13, 2019, 5:04 pm

বিজ্ঞপ্তি :
আমাদের সাইটে স্বাগতম...
সংবাদ শিরোনাম :
সোনারগাঁওয়ে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ আহত-১০ ৯ জেলের সাজা ও জরিমানা বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা পেলেন সোনারগাঁও সোনারগাঁওয়ে রয়েল প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে রউশন আরা ফাউন্ডেশন জয়ী গজারিয়া উপজেলার মল্লিকের চর গ্রামের বিদ্যুৎ সংযোগ উদ্বোধন সোনারগাঁওয়ে মেঘনা নদীতে কারেন্ট জাল দিয়ে ইলিশ মাছ ধরার অপরাধে দুই জেলেকে কারাদন্ড শিশুদের উন্নত জীবন, উজ্জ্বল ভবিষ্যত দেয়ার চেষ্টা করছি… প্রধানমন্ত্রী ভূমিদস্যু আল মোস্তফা ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে সোনারগাঁওয়ে কৃষকদের হামলা, মামলাসহ প্রাণনাশের হুমকী প্রদান করায় প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ অর্ধগলিত লাশটির পরিচয় পাওয়া গেছে আড়াইহাজারে পুলিশের পোশাক পড়ে ডাকাতি

সোনারগাঁওয়ে আল মোস্তফা গ্রুপের অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ

হারুন-অর-রশিদ : নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ের বৈদ্যেরবাজার এলাকা মেঘনা নদীর পশ্চিম তীর দখল করে গড়ে তোলা আল মোস্তফা গ্রুপের ৪ তলা বহুতল গুড়িয়ে দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ। এছাড়া নদী দখল করে ডকইয়ার্ড সম্প্রসারণ করায় ইউরো মেরিন শিপ বিল্ডার্স নামের জাহাজ নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দেন সংস্থাটির ভ্রাম্যমান আদালত।

মঙ্গলবার সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৩ টা পর্যন্ত বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী ও উপ পরিচালক মোঃ শহীদুল্লাহর সার্বিক তত্বাবধায়নে উচ্ছেদ অভিযানটি পরিচালিত হয়। উচ্ছেদ অভিযানে দুটি ভেকু, দুটি উদ্ধারকারী জাহাজ, একটি টাগবোট, বিপুল সংখ্যক উচ্ছেদ কর্মী, পুলিশ ও আনসার সদস্য, বিআইডব্লিউটিএর কর্মকর্তা কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।

বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম পরিচালক গুলজার আলী বলেন, মেঘনা নদীর দুই তীরে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে ৬ দিনব্যাপী অভিযান পরিচালিত হবে। মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনের অভিযানে আল মোস্তফা গ্রুপের ৪ তলা বহুতল ভবন গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে। এছাড়া নদী দখল করে ডকইয়ার্ড সম্প্রসারণ করায় ইউরো মেরিন শিপ বিল্ডার্স নামের জাহাজ নির্মাণকারী প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এর আগে সোমবার মেঘনা নদীর তীরবর্তী মুন্সিগঞ্জের গজারিয়া থানার চরবেতাকিএলাকায় খান ব্রাদার্সের জাহাজ নির্মান প্রতিষ্ঠানের ৬শ’ ফুট প্রশস্ত সীমনা প্রাচীর সহ দুইটি বালু ভরাট কাজের ড্রেজার ভাংচুর করা হয়। একই সাথে সোনারগাঁয়ের হোসেনদি বলাকিরচর এলাকায় নদী ভরাট করে বালু রাখা অংশ ভেকু দিয়ে খনন করে নদী দখল মুক্ত করা হয়। এছাড়া মেঘনা লঞ্চঘাট এলাকায় নদীর তীরে ৩শ’ ফুট লম্বা ও ২শ’ ফুট প্রশস্ত জায়গা দখল করে অবৈধ ভাবে বালু, পাথর ও টিনসহ বিভিন্ন নির্মান সামগ্রী ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের এসব মালামাল জব্দ করা হয়। বিআআইডব্লিউটিএ কর্তৃপক্ষ এসব জব্দকৃত মালামাল নিলামে তুলে ৫ লক্ষ ৫২ হাজার টাকায় বিক্রি করে দেয়।

গুলজার আলী আরো বলেন, নদীর তীর দখল করে আরো যারা অবৈধ ব্যবসা পরিচালনা করছে পরবর্তী অভিযানগুলোতে পর্যায়ক্রমে সেগুলো উচ্ছেদ করনা হবে। তিনি জানান, গত শুক্রবার নদী কমিশনের চেয়ারম্যার বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদীবন্দরের কর্মকর্তাদের নিয়ে সরেজমিন মেঘনা নদী পরিদর্শন করেছেন। এসময় মেঘনা গ্রুপ, বসুন্ধরা গ্রুপ, আমান ইকোনোমিক জোন, ইউনিক গ্রুপ, আল মোস্তফা গ্রুপের পলিমার ইন্ড্রাষ্ট্রিজসহ বেশ কিছু শিল্প প্রতিষ্ঠানে নদী দখলের প্রমান পেয়েছেন। সেগুলো পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ করা হবে।

উল্লেখ্য, উপজেলার সাতভাইয়াপাড়া ও চর লাউয়াদী মৌজার মেঘনা নদী, নদীর তীরবর্তী খাস ভূমি, সরকারি দুইটি খাল এবং ফোরশোর ল্যান্ডভূক্ত ভূমিতে বালু ভরাট করে আল মোস্তফা গ্রুপের মালিকানাধীন ইউরো মেরিন শিপ বিল্ডার্স ও হেরিটেজ পলিমার এন্ড ভেজিটেবলস লিমিটেড নামক প্রতিষ্ঠানটি প্রাচীর নির্মাণ করছে। স্থানীয় কিছু অসাধু ব্যক্তিদের সহায়তায় বৈদ্যেরবাজার এলাকায় নদীর পশ্চিম দিকে ২হাজার ফুট দীর্ঘ বাই ৭শ প্রস্থ্য বর্গফুট পরিমান মেঘনা নদীর তীরভূমি ভরাট করে বিশালাকার এ প্রান নির্মাণ করা হচ্ছে। বালু ভরাটের কারনে মেনীখালী নদীর মুখ শুকিয়ে যাওয়ায় রতনপুর, ভাটি বন্দর, পিরোজপুর, দুধঘাটা ও নোয়াগাও গ্র কৃষকরা চলতি ইরি মৌসুমে পানি সংকটে পরে। পর্যাপ্ত সেচ দিতে না পারায় কয়েকশ একর কৃষি জমির ফসল নষ্ট হওয়ার আশংকা করছে স্থানীয় কৃষি বিভাগ এবং এলাকাবাসী। নদী দখলের কারনে সোনারগাওয়ের ঐতিহ্যবাহী কাইকারটেক হাট থেকে বৈদ্যেরবাজার ঘাটে নৌ-চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে পরেছে।

জানা গেছে, নদী দখলের পাশাপাশি ইউরো মেরিন শিপ বিল্ডার্স ও হেরিটেজ পলিমার এন্ড ভেজিটেবলস লিমিটেড নামক প্রতিষ্ঠানটির মালিক আল মোস্তফা জনপদ বিভাগের জমিও দখল করেছে। ইতিমধ্যে সড়ক ও জনপদ বিভাগ দখলকৃত রাস্তা দেওয়ার জন্য নোটিশ করলেও তা আমলেনেয়নি আল-মোস্তফা গ্রুপ। বাংলাদেশ অব্যন্তরিবহন নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ বিগত ২০১৭ সনের ৬ ডিসেম্বর সরেজমিনে তদন্তে এসে বৈদ্যেরবাজার এলাকায় মেঘনা নদীর পশ্চিম দিকে ২হাজার বাই ৭শ বর্গফুট পরিমান মেঘনা নদীর তীরভূমি দখল ও ভরাটের সত্যতার প্রমান পায়। পরবর্তীতে বিআইডবিল্ডিউটিএ

নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের উপ-পরিচালক মো. শহীদুল্লাাহ, উপ-পরিচালক এহেতেশামুল পারভেজ, সহকারী পরিচালক শাহ আলম, সহকারী তত্ত্বাবধায়ক জাহাঙ্গীর আলমসহ কর্মকর্তারা প্রষ্ঠানটির সকল কাজ বন্ধ করে ৭ দিনের মধ্যে শিল্প প্রতিষ্ঠানটির নিজ খরচে বালু অপসারণ করার নির্দেশ দেন। এমনকি সহকারী কমিশনার (ভূমি), সোনারগাঁও কার্যালয় থেকেও বালু অপসারণ ও দখলকৃত নদী ছেড়ে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়। এতকিছুর পরেও আল-মোস্তফা নদী দখল করে তার প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছিলে।

উপজেলার বৈদ্যেরবাজার সাতভাইয়াপাড়া গ্রামের আলী মিয়ার ছেলে হাজী আজিজুল্লাহ বলেন, আমি বাদী হয়ে অবৈধ দখল ও নদী ভরাটের উপর নিষেধাজ্ঞা চেয়ে মহামান্য হাইকোর্টে একটি রিট করি। হাইকোর্ট বিভাগের বিচারপতি মামুনুর রহমান ও বিচারপতি আশিষ রঞ্জন দাস বিগত ২০১৭ সনের ১১ডিসেম্বর নদী দখলের উপর নিষেধাজ্ঞা দেন। কিন্তু মহামান্য হাইকোর্ট বিভাগের নির্দেশ অমান্য করে স্থানীয় প্রশাসনকে ম্যানেজ করে কাজ করে যাচ্ছে শিল্প প্রতিষ্ঠানটির মালিক আল-মোস্তফা।
এলাকাবাসীর জানান,সড়কও জনপদের জায়গা দখল করে দোকানপাঠ গড়ে তুলেছে আল-মোস্তফা। সে গুলি অভিলম্বে দখল মুক্ত করা জন্য প্রশাসনের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন।
হিন্দু সম্প্রদায়ের লোক জন বলেন, আমরা নদীতে মাছ ধরে জিবিকা নির্বাহ করে থাকি, কিšুÍ আল-মোস্তফা প্রায় ২ বছর ধরে সড়কারী খাল ও মেনিখালি নদে বালু ভরাট করে দখল করার কারনে জেলে পরিবারসহ প্রায় ২০হাজার মানুষ চলাচলে ব্যহতে হচ্ছে ।

এই পোস্টটি আপনার সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করুন

Leave a Reply

© All rights reserved © 2017 সোনারগাঁও খবর
Design BY Codeforhost.com
themesbsongar1727434411